ক্যাম্পাস সাংবাদিকদের হয়রানি বন্ধ করুন



সম্প্রতি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় প্রেসক্লাবের এক সাবেক সভাপতিকে আইসিটি আইনে গ্রেফতার করে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে । সেই বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষকের বিরুদ্ধে হলে সিট বাণিজ্যের একটি অভিযোগ গণমাধ্যমে প্রচারের কারণে করা হয়েছে এই মামলা । বলা হয়ে থাকে সাংবাদিকতার আঁতুড়ঘর ক্যাম্পাস সংবাদিকতা । যারা আজ দেশের নামকরা সাংবাদিক তাদের অনেকেই বিশ্ববিদ্যালয় জীবনে যুক্ত ছিলেন ক্যাম্পাস সাংবাদিকতায় । নিজেদের একান্ত ভালোলাগা থেকে পড়ালেখার পাশাপাশি স্বল্প কিংবা বিনা পারিশ্রমিকে তারা কাজ করে বিভিন্ন গণমাধ্যমে, তুলে ধরেন ক্যাম্পাসের সুযোগ-সুবিধা, নিয়ম-অনিয়ম । আর এই কাজ করতে গিয়ে প্রায়ই তাদেরকে চক্ষুশূল হতে হয় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের, অসৎ শিক্ষকদের কিংবা রাজনৈতিকদের । প্রায়ই তাদেরকে বিভিন্নভাবে হয়রানি করার চেষ্টা করা হয় । আবার কখনো কখনো তাদের মামলা হামলা করে থামানোর চেষ্টা করা হয় । যা কখনোই কাম্য নয় । ক্যাম্পাস সাংবাদিকদের ছাড়া ক্যাম্পাসের বিভিন্ন অনুষ্ঠান, সভা-সেমিনার, সুযোগ, সুবিধা-অসুবিধা, নিয়ম-অনিয়ম খুঁজে বের করা এবং সেগুলোর প্রচার করা অনেকটাই অসম্ভব । তাই ক্যাম্পাস সংবাদিকদের হয়রানি বন্ধে কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণের দাবি জানাই ।

লেখক:
মো. জাহিদ হাসান
শিক্ষার্থী, ফার্মেসি বিভাগ
কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়
crjahid@gmail.com

No comments

Powered by Blogger.